এসো আরবী শিখি ১-২-১ (নোট)

এসো আরবী শিখি কিতাবের প্রথম খণ্ডের দ্বিতীয় অধ্যায়ের প্রথম পাঠের নোট। এই নোটে মুআন্নাছে মাজাযীর একটি শব্দ, সাধারণ প্রশ্ন ও বিশেষ প্রশ্নের ব্যবহার, বৈশিষ্ট্য ও পার্থক্য নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

এই নোট তাদের জন্য বেশী উপকারী হবে যারা এই পাঠের আমার তৈরিকৃত ভিডিওটি দেখেছেন। ভিডিও সরাসরি ইউটিউব থেকে দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

video

 

قوس শব্দটি মুআন্নাছে মাজাযী

قوس শব্দটির অর্থ একটি ধনুক। অর্থ দেখে এই শব্দকে মুআন্নাছ বলা যায় না। তেমনিভাবে এই শব্দের শেষে মুআন্নাছের কোন আলামত (যেমন গোল তা নেই), তা স্বত্বেও আরবরা শব্দটিকে মুআন্নাছ হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন। তাই, এই শব্দটি মুআন্নাছে মাজাযী।

 

দুই ধরণের প্রশ্নঃ

এসো আরবী শিখি প্রথম খণ্ডের দ্বিতীয় অধ্যায়ের প্রথম কয়েকটি পাঠে সাধারণ প্রশ্ন ও বিশেষ প্রশ্নের ব্যবহার দেখানো হয়েছে। নিচে এই দুই প্রকার প্রশ্ন সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

 

সাধারণ প্রশ্নের আলোচনাঃ

এই পাঠ এবং পরবর্তী পাঠসমূহে সাধারণ প্রশ্ন হিসেবে সে সকল প্রশ্নবোধক বাক্যকে দেখানো হয়েছে, যেগুলোর ব্যবহার আমরা প্রথম অধ্যায়ের তৃতীয় পাঠে শিখেছি এবং যে ধরণের প্রশ্ন ও প্রশ্নের উত্তর আমরা তৃতীয় পাঠের পরবর্তী সকল পাঠেই পড়েছি।

দুইটি উদাহরণ দেখলে বিষয়টি আমাদের সামনে স্পষ্ট হয়ে যাবে।

هل هذا قلم؟  –  نعم … هذا قلم.

هل هذا مفتاح؟  – لا … بل هذا قلم.

এই জাতীয় প্রশ্ন সম্পর্কে আমরা পূর্বে যা পড়েছিলাম, তা হলঃ

  • কোন একটি বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য এ জাতীয় প্রশ্ন করা হয়।

( যেমন, هل هذا قلم؟  প্রশ্নটি করা হয়েছে নিশ্চিত হওয়ার জন্য যে, আমার ধারণা, এটি কলম। এখন আসলেই এটি কলম কি না? )

  • এ জাতীয় প্রশ্নের গঠন ও তরজমা খুবই সহজ। সাধারণ একটি বাক্যের শুরুতে هل যুক্ত করে দিলেই এই জাতীয় প্রশ্ন তৈরি হয়ে যায়। তরজমার ক্ষেত্রেও যেই অংশ শুরুতে রয়েছে সেই অংশের তরজমা শুরুতে এবংযেই অংশ শেষে রয়েছে সেই অংশের তরজমা শেষে করা হয়।

(যেমন, একটি সাধারণ বাক্য  هذا قلم এর শুরুতে هل যুক্ত করে هل هذا قلم؟ এই সাধারণ প্রশ্নটি তৈরি করা হয়েছে। এখানে তরজমার ক্ষেত্রে শুরুতে  هذا শব্দের তরজমা করা হবে এবং শেষে قلم  শব্দের তরজমা করা হবে। আর এ দুইয়ের মাঝে থাকবেهل  শব্দের তরজমা। পুরো বাক্যের তরজমা হবে এমন, এটি কি তালা?)

 

  • সাধারণ প্রশ্নের উত্তর প্রদানের সময় نعم ، لا এবং  بل এই শব্দ তিনটি ব্যবহার করা হয়। প্রশ্নের উত্তর হ্যাঁবোধক হলে نعم শব্দ এবং উত্তর নাবোধক হলে لا  এবং  بل শব্দ দুইটি ব্যবহার করা হয়।

 

  • উত্তর প্রদানের সময় সম্পূর্ণ বাক্য বলা হয়।

 

বিশেষ প্রশ্নের আলোচনাঃ

এই পাঠে আমরা বিশেষ প্রশ্নের পরিচয় লাভ করেছি। যেহেতু বিষয়টি আমাদের জন্য নতুন, তাই এই লেখাটিতে বিশেষ প্রশ্নের প্রতিটি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে এবং প্রতিটি বিষয় ভেঙ্গে ভেঙ্গে বুঝিয়ে দেওয়া হবে ইনশাআল্লাহ্‌।

 

বিশেষ প্রশ্নের প্রকারভেদঃ

এসো আরবী শিখি কিতাবে বিশেষ প্রশ্নকে দুই ভাগে ভাগ করে দেখানো হয়েছে। এক প্রকার বিশেষ প্রশ্নের মধ্যে ام শব্দটি ব্যবহৃত হয়। এই প্রকার বিশেষ প্রশ্নকে ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন বলা হয়। আরেক প্রকার বিশেষ প্রশ্ন রয়েছে রয়েছে যার মধ্যে ام শব্দটি ব্যবহৃত হয় না। এই প্রকারের বিশেষ প্রশ্নকে ام-ছাড়া বিশেষ প্রশ্ন বলা হয়।

তাহলে আমরা জানলাম, বিশেষ প্রশ্ন দুই প্রকার।

  • ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন
  • ام-ছাড়া বিশেষ প্রশ্ন

এই পাঠে আমরা শুধুমাত্র ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন সম্পর্কে জানব। ام-ছাড়া বিশেষ প্রশ্ন সম্পর্কে আমরা পরবর্তী পাঠগুলোতে জানতে পারব ইনশাআল্লাহ্‌।

 

 

ام সহ বিশেষ প্রশ্নের ব্যবহার

দুইটি উত্তর থেকে একটি উত্তরকে বেঁছে নেওয়ার জন্য ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন ব্যবহার করা হয়।

(যেমন, একটি বস্তু সম্পর্কে আমার নিশ্চিত ধারণা, এটি কলম অথবা চাবি। আমি প্রশ্ন করলাম, ‘এটি কি কলম না চাবি?’ এখানে প্রশ্ন করার দ্বারা উদ্দেশ্য হল, ‘কলম বা চাবির’ এই দুই ধারণা থেকে যে কোন একটি ধারণাকে নির্দিষ্ট করা।)

 

ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন গঠন করার নিয়ম

প্রথমে প্রশ্নবোধক শব্দ হিসেবে হামজাতুল ইসতিফহাম (أ) বসবে। তারপর সম্ভাব্য দুইটি উত্তরের একটি বসবে। তারপর যে ব্যক্তি, বস্তু বা বিষয় সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয় তা বসবে। তারপর ام শব্দটি বসবে। তারপর বসবে সম্ভাব্য অপর উত্তরটি।

যেমন, আমি যদি নিকটবর্তী কোন বস্তু সম্পর্কে নিশ্চিত জানি যে, এটি চাবি অথবা কলমের যে কোন একটি হবে এবং আমি নিশ্চিত হতে চাই যে, আসলে এটি কী?, তখন প্রশ্নবোধক বাক্যটি যেভাবে তৈরি করবঃ

এখানে সম্ভাব্য দু’টি উত্তর হচ্ছে, কলম (قلم) এবং চাবি (مفتاح)। এখন উপরের নিয়মে প্রশ্নবোধক বাক্য তৈরি করার সময় প্রথমে হামজাতুল ইসতিফহাম বসবে। তারপর সম্ভাব্য দুইটি উত্তরের একটি قلم অথবা مفتاح বসবে। তারপর ‘ইহা’ শব্দের আরবী هذا বসবে। যেহেতু এই প্রশ্নে ‘ইহা’ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হচ্ছে। তারপর বসবে ام শব্দটি। তারপর বসবে সম্ভাব্য উত্তর দুইটির অপরটি। সুতরাং, প্রশ্নবোধক বাক্যটি হবে এমন যে, أ قلم هذا ام مفتاح؟ অথবা  أ مفتاح هذا ام قلم؟।

উল্লেখ্য এখানে সম্ভাব্য উত্তরের দুইটি শব্দ قلم ও  مفتاحউভয়টিই মুযাক্কার। তাই ام শব্দের পূর্বে ইসমুল ইশারা হিসেবে هذا বসেছে। কিন্তু যদি সম্ভাব্য উত্তর দুইটির একটি মুযাক্কার এবং অপরটি মুআন্নাছ হয়, তাহলে যে উত্তরটি শুরুতে বসবে তার উপর ভিত্তি করে ইসমুল ইশারার মুযাক্কার-মুআন্নাছ নির্ধারণ করা হবে।

যেমন, উপরের উদাহরণে সম্ভাব্য উত্তর দুইটি ছিল قلم ও مفتاح , এখানে আমরা যদি  مفتاح এর পরিবর্তে مسطرة শব্দটিকে সম্ভাব্য উত্তর হিসেবে গণ্য করি, তাহলে প্রশ্নবোধক বাক্যটি হবে, أ قلم هذا ام مسطرة؟  অথবা  أ مسطرة هذه ام قلم؟

প্রথম বাক্যের প্রথম শব্দ  قلم শব্দটি মুযাক্কার হওয়ায় هذا শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে এবং দ্বিতীয় বাক্যের প্রথম শব্দ  مسطرة  শব্দটি মুআন্নাছ হওয়ায় هذه শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে।

 

 

ام-সহ বিশেষ প্রশ্নের তরজমা করার নিয়মঃ

যে ব্যক্তি, বস্তু বা বিষয় সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়, তার তরজমা প্রথমে করা হবে। তারপর বসবে ‘কি’ শব্দটি। তারপর সম্ভাব্য উত্তর দুইটির অর্থ বসবে এবং উত্তর দুইটির মাঝে বসবে ‘না’ শব্দটি।

যেমন,  أ قلم هذا ام مفتاح؟ বাক্যটির তরজমা কিভাবে করা হবে লক্ষ্য করি।

এখানে هذا সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়েছে, তাই সবার আগে এটির তরজমা করা হবে। তারপর হামজাতুল ইসতিফহামের অর্থ ‘কি’ বসবে। তারপর সম্ভাব্য উত্তর দুইটি অর্থাৎ  قلم  এবং مفتاح শব্দ দুইটির অর্থ বসবে। এই উত্তর দু’টির মাঝে  ام শব্দের তরজমা হিসেবে ‘না’ শব্দটি বসবে।

সুতরাং বাক্যটির তরজমা এরূপঃ এটি কি কলম না চাবি?

 

 

ام-সহ বিশেষ প্রশ্নের উত্তর প্রদানের নিয়মঃ

ام-সহ বিশেষ প্রশ্নের উত্তর প্রদানের সময় সম্ভাব্য উত্তর দুইটির যে কোন একটি উল্লেখ করা হয়। পুরো বাক্য অথবা نعم ، لا ইত্যাদি শব্দ উল্লেখ করা হয় না।

যেমন, এটি কি কলম না চাবি? – এখানে সম্ভাব্য উত্তর দু’টি হচ্ছে, কলম ও চাবি।

তাই উত্তর প্রদানের সময় শুধুমাত্র চাবি অথবা কলম উল্লেখ করা হবে।

এমনিভাবে এটি কি বড় চাবি না ছোট চাবি?- এখানে সম্ভাব্য উত্তর দু’টি হচ্ছে, বড় চাবি ও ছোট চাবি। সুতরাং উত্তরে শুধুমাত্র বড় চাবি অথবা ছোট চাবি বলা হবে।

 

গুরুত্বপূর্ণ একটি কথাঃ

শুধুমাত্র বুঝানোর জন্য উপরের বিষয়গুলো উল্লেখ করা হয়েছে। এভাবে নিয়মাকারে বিশেষ প্রশ্নের বিষয়গুলো মনে রাখা কষ্টকর। মনে রাখার সহজ পদ্ধতি হল কয়েকটি বিশেষ প্রশ্ন মুখস্ত করে রাখা। উপরের আলোচনা বুঝে নিচের প্রশ্নগুলো অর্থসহ মুখস্ত করে রাখলে বিশেষ প্রশ্নের গঠন ও তরজমার নিয়ম আত্নস্থ হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ্‌।

ا قلم هذا ام مفتاح؟ – এটি কি কলম না চাবি?

أ مفتاح هذا ام قلم؟ – এটি কি চাবি না কলম?

أ قلم هذا ام مسطرة؟ – এটি কি কলম না রুলার?

أ مسطرة هذه ام قلم؟ – এটি কি রুলার না কলম?

أ هذا قلم ام ذلك؟ – কলম কি এটি না সেটি?

 

 

 

সাধারণ প্রশ্ন ও বিশেষ প্রশ্নের পার্থক্যঃ

এত সময় আমরা সাধারণ প্রশ্ন ও বিশেষ প্রশ্নের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জেনেছি। এখন আমরা এক নজর দেখে নেই সাধারণ প্রশ্ন ও ام-সহ বিশেষ প্রশ্নের মধ্যকার পার্থক্যগুলোঃ

পার্থক্য সাধারণ প্রশ্ন ام-সহ বিশেষ প্রশ্ন
প্রশ্নের

উদ্দেশ্য

একটি বাক্যের সত্যতা সম্পর্কে

নিশ্চিত হওয়া।

সম্ভাব্য দুইটি উত্তর থেকে একটিকে বেঁছে নেওয়া।
প্রশ্নবোধক

শব্দ

هل হামজাতুল ইসতফহাম (أ)
বাক্য গঠনের নিয়ম সাধারণ বাক্যের মতো। শুধুমাত্র শুরুতে هل যুক্ত হবে। বিশেষ নিয়মে গঠিত।
উত্তর প্রদানের নিয়ম শুরুতে نعم ، لا ইত্যাদি থাকে এবং পুরো বাক্য উল্লেখ করা হয়। শুধুমাত্র সঠিক উত্তর উল্লেখ করা হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্রশ্নমালা

১. কোন ক্ষেত্রে সাধারণ প্রশ্ন ব্যবহৃত হয়?

২. কিভাবে সাধারণ প্রশ্ন গঠন করা হয় এবং কিভাবে এর তরজমা করা হয়?

৩. কিভাবে সাধারণ প্রশ্নের উত্তর প্রদান করা হয়?

৪. কোন ক্ষেত্রে ام সহ বিশেষ প্রশ্ন ব্যবহৃত হয়?

৫. কিভাবে ام সহ বিশেষ প্রশ্ন গঠন করা হয়?
৬. কিভাবে ام সহ বিশেষ প্রশ্নের তরজমা করা হয়?

৭. কিভাবে ام সহ বিশেষ প্রশ্নের উত্তর প্রদান করা হয়?

Facebook Comments

বিভাগিয় প্রধানঃ (মাদানী নেসাব) মাদরাসাতুল কাসেম আল-ইসলামিয়া, গোলাপবাগ, ঢাকা

2 thoughts on “এসো আরবী শিখি ১-২-১ (নোট)

  1. আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ।
    ১ম খন্ডের ২য় অধ্যায়ের নোটগুলোর পিডিএফ লিংক কি মেহেরবানী করে দেয়া যাবে?

    1. জি, একটু ব্যস্ততা কমলেই পিডিএফ অংশ লেখার শেষে যোগ করে দিব ইনশাল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts

Begin typing your search term above and press enter to search. Press ESC to cancel.

Back To Top
error: Content is protected !!