এসো আরবী শিখি (কম্পেয়ার) ১-২-৪

এসো আরবী শিখি  কিতাবের প্রথম খণ্ডের দ্বিতীয় অধ্যায়ের চতুর্থ পাঠে আমরা অনেকগুলো নতুন বিষয় শিখেছি। তার মধ্যে কয়েকটি বিষয় রয়েছে যেগুলো ইংলিশ গ্রামারের সাহায্যে খুব সহজেই আমরা বুঝে নিতে পারব ইনশাআল্লাহ্‌। সেই বিষয়গুলো নিয়েই আলোচনা করা হয়েছে এই লেখাটিতে।

 

Sentence ও তার অংশসমূহঃ

Sentence-কে আরবীতে বলা হয় جملة (জুমলা)।

আমরা জানি, sentence-এর অংশ দুইটি।

  • subject
  • predicate

প্রথম খণ্ডে যে আরবী বাক্যগুলো রয়েছে, সেগুলোর অংশও দুইটি।

  • মুবতাদা
  • খবর

আরবী ভাষার ‘মুবতাদা’ হচ্ছে সেটিই যেটি ইংরেজি ভাষায় subject এবং ‘খবর’ হচ্ছে সেটিই যেটি ইংরেজি ভাষায় predicate।

নিচের লাইনটি মুখস্ত করে নিলে উপরের কথাগুলো মনে রাখতে সুবিধা হবে।

sentence = জুমলা।

subject = মুবতাদা।

predicate = খবর।

লক্ষ্য করিঃ

১. ইংরেজি ভাষায় যেটা subject আরবী ভাষায় সেটাকে সবসময় মুবতাদা বলা হয় না। কখনো কখনো ফায়েলও বলা হয়ে থাকে। অর্থাৎ, subject কখনো ফায়েল হবে, কখনো হবে মুবতাদা।

কখন মুবতাদা আর কখন ফায়েল বলব, সেটি নিচের লেখাটি পড়লেই বুঝে আসবে ইনশাআল্লাহ্‌।

  • ইংরেজি ভাষার যে বাক্যগুলোতে main verb হিসেবে linking verb-গুলো ব্যবহৃত হয় (such as am, is, are, was, were, become, seem), সে সকল বাক্যের আরবী বাক্যগুলোর subject-কে বলা হবে মুবতাদা।

এসো আরবী কিতাবের প্রথম খণ্ডে আমাদের পঠিত সমস্ত বাক্যই হচ্ছে এমন বাক্য। আরেকটি বিষয় হল, যে সকল linking verb প্রেসেন্ট টেনসে থাকে, সেগুলোর বিপরীতে আরবীতে দৃশ্যমান কোন verb (ফেয়েল) থাকে না।

 

  • ইংরেজি ভাষার যে বাক্যগুলোতে main verb হিসেবে action verb-গুলো (such as eat, play, fight, think, write) ব্যবহৃত হয়, সে সকল বাক্যের সাবজেক্টকে বলা হবে ফায়েল।

যে সকল ইংরেজি বাক্যে action verb থাকে, সেগুলোর আরবী বাক্যের গঠন হয় নিচের মতো।

ভার্ব + সাবজেক্ট + অন্যান্য অংশ।

তবে নির্দিষ্ট কিছু কারণে কখনো কখনো সাবজেক্টকে ভার্বের আগে নিয়ে আসা হয়। সেই অবস্থায় সাবজেক্টকে কী বলা হবে, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে। দ্বিতীয় খণ্ডে সেটি নিয়ে আলোচনা করা হবে ইনশাআল্লাহ্‌।

 

Common Noun ও ইসমে জিনসঃ

১. আরবী ভাষায় Common Noun-কে বলা হয় ইসমে জিনস।

২. ইংরেজি ভাষায় common noun-এর শুরুতে a/an যুক্ত করা হলে তা ‘অনির্দিষ্ট এককের’ অর্থ দেয়।

যেমন,

book = বই

a book = একটি বই

student = ছাত্র

a student = একজন ছাত্র

পক্ষান্তরে আরবী ভাষায় সাধারণ অবস্থাতেই একটা শব্দ ‘অনির্দিষ্ট এককের’ অর্থ দেয়।

যেমন,

كتاب = একটি বই

تلميذ = একজন ছাত্র

common noun-এর অর্থ পাওয়ার জন্য শব্দের শুরুতে আলিফ লাম যুক্ত করা হয়।

الكتاب = বই

التلميذ = ছাত্র

৩. অবশ্য আরবী ভাষায় সামান্য কিছু শব্দ এমন রয়েছে যেগুলো গঠনগতভাবেই common noun বুঝায়।

যেমন,

 تمر = খেজুর

زهر = ফুল

সে শব্দগুলোর মধ্যে অনির্দিষ্ট এককের অর্থ পেতে হলে শব্দের শেষে গোল তা (ة) যুক্ত করা হয়।

 تمرة =  একটি খেজুর

زهرة = একটি ফুল

৪. আরবী ভাষায় শব্দের শুরুতে আলিফ-লাম যুক্ত করার দুইটি কারণ আমরা এখন পর্যন্ত জেনেছি।

  • শব্দকে নির্দিষ্ট করার জন্য। যেমন, ইংরেজি শব্দকে নির্দিষ্ট করার জন্য the ব্যবহার করা হয়।
  • শব্দটি common noun বুঝানোর জন্য।

Facebook Comments

রাজনীতিবিদ ও শিক্ষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts

Begin typing your search term above and press enter to search. Press ESC to cancel.

Back To Top
error: Content is protected !!